জাতীয়

Bd-In

আজ সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক। দুই দেশের মধ্যে সন্ত্রাস বিরোধী সহযোগিতা বৃদ্ধি, গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়, সীমান্তে পাচার রোধসহ একাধিক বিষয় নিয়ে দিল্লিতে শুরু হতে যাচ্ছে এই বৈঠক। দুই দিনব্যাপী এই বৈঠকে ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন দেশটির স্বরাষ্ট্রসচিব রাজীব মেহরিষি এবং বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন স্বরাষ্ট্র সচিব মোজ্জামেল হক খান।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে খবর, ভারতীয় উপমহাদেশে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর তৎপরতা বৃদ্ধি, সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ ও ভারতের কয়েকটি রাজ্যে 'জেহাদি' সংগঠনের উপস্থিতি এবং তা দমন করতে কী ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া দরকার- প্রধানত সেই সব বিষয়েই দুই পক্ষের মধ্যে মতবিনিময় হবে।

ভারত-বাংলাদেশ উন্মুক্ত সীমান্ত দিয়ে গবাদি পশু, মাদক ও অস্ত্র পাচারের মতো অপরাধগুলো রোধের উপায় খুঁজে বের করতেও দুই দেশের স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠকে আলোচনা হতে পারে।

ভারতের মাটিতে লুকিয়ে থাকা বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি এবং যুদ্ধাপরাধীদের ধরতেও বাংলাদেশের তরফে ভারতের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

এর পাশাপাশি গত ১ জুলাই ঢাকার গুলশানে হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনার তদন্তের অগ্রগতির বিষয়েও দুই দেশের মধ্যে তথ্য বিনিময়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্প্রতি জেএমবি জঙ্গি সন্দেহে কলকাতায় আটক কয়েকজনকে জেরাও করেছে এনআইএ এবং র‌্যাবের গোয়েন্দারা।

 

বিস্তারিত

আন্তর্জাতিক

eu

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিম সংকট নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ)। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মুখপাত্র ফ্রেদেরিকা মেঘোরিনি বলেছেন, রাখাইনের উত্তরাঞ্চলে সেনা শক্তির অপব্যবহার করছে মিয়ানমার সরকার। সেখানকার হাজার হাজার মানুষ নিপীড়নের শিকার। এ ইস্যুতে স্বাধীন তদন্ত কমিশন গঠন করা দরকার।

অবিলম্বে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। পাশাপাশি সেখানকার মানবাধিকার লংঘনের বিষয়ে স্বাধীন তদন্ত কমিশন গঠন ও বস্তুনিষ্ঠ তদন্ত দাবি করছে ইইউ। এদিকে জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা ইউএনএফপিএ'র প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রাজ্যটির ৭ হাজারের বেশি গর্ভবতী নারী।

 

বিস্তারিত

উত্তরার খবর

chagollllllll

গত ৪ঠা ডিসেম্বর ২০১৬ বেলা ১১.০০ টায় গ্রীণ গোল্ড সোসাইটির উদ্যোগে ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নে সোসাইটি পরিচালিত শিশু বন্ধু কর্মসূচীর আওতায় শিশুবন্ধু পরিবারের মধ্যে শিশুর পুষ্টি, পরিবারের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বাল্য বিবাহ রোধ ও যৌতুক বিরোধী সচেতনতা সৃষ্টিসহ পরিবারগুলোর মধ্যে গবাদি পশু (ছাগল) বিতরণ করা হয়। বিনা মূল্যে বিতরণকৃত পশুর একটি বাচ্চা অন্য একটি শিশু বন্ধু (সুবিধাবঞ্চিত ও দুস্থ শিশু) পরিবারের মধ্যে দান করবেন বলে পশু গ্রহণকারী পরিবার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। পর্যায়ক্রমে সমগ্র উপজেলাকে কর্মসুচীর আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে বলে সোসাইটি কর্তৃপক্ষ উল্লেখ করেন।  
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গ্রীণ গোল সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আব্দুল হামিদ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন গ্রীণ গোল সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক মো. আবু বকর সিদ্দীক, পরিচালক সম্পদ ব্যবস্থাপনা মো. আজহার আলী মিঞা, সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ হোসাইন আহমদ, সোসাইটির সদস্য মোজাম্মেল হক, সোসাইটির কো-অর্ডিনেটর মো. সামসুল হক ও অন্যান্য। অনুষ্ঠানে স্থানীয় ইউপি সদস্য, শিক্ষকও শিক্ষার্থীবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে শিশুদের চরিত্র গঠনে অভিভাবক ও শিক্ষকদের ভূমিকা সম্পর্কিত বিষয়েও আলোচনা করা হয়।  
উল্লেখ্য গ্রীণ গোল সোসাইটি ইতোমধ্যে সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও প্রান্তিক নারীদের জন্য শিশু বন্ধু পাঠশালা, মহিলাদের সেলাই প্রশিক্ষণ, গৃহসাথী (গৃহকর্মী) প্রশিক্ষণ, প্রবীণ কল্যাণ কর্মসূচী, স্কুল নেটওয়ার্কিং এর আওতায় কাউন্সেলিং ও ক্যারিয়ার প্লানিং সহায়তা কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে বিশেষভাবে প্রশংসিত হচ্ছে। এ কর্মসূচীগুলো সৃজনশীল, ব্যতিক্রমধর্মী এবং অগ্রসর চিন্তার ফসল হিসাবে সুধীমহলে প্রশংসা লাভ করছে। জানা যায়, প্রতি বছর সোসাইটি দুস্থদের মধ্যে শীতবস্ত্র প্রদান, রমযানের ঈদে খাদ্য সামগ্রী এবং কুরবানীর ঈদে দুস্থদের মধ্যে নিয়মিত মাংস বিতরণ করছে। সমাজ উন্নয়নে গ্রীণ গোল সোসাইটি স্বেচ্ছাসেবী ও অরাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনার মাধ্যমে বঞ্চিত মানুষের কল্যাণ ও উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে বলে সংশ্লিষ্টদের সাথে আলাপ করে জানা যায়।

বিস্তারিত

বিনোদন

dancer

মঞ্চে তখন পারফর্ম করছেন তিনি। আচমকাই তাকে লক্ষ্য করে চলে গুলি। মঞ্চেই লুটিয়ে পড়েন তিনি। অনুষ্ঠান চলাকালীনই খুন হলেন এক নৃত্যশিল্পী। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটল ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের ভাটিন্ডা জেলায় এক বিয়ের অনুষ্ঠানে।

বিভিন্ন বিবাহবাসরেই এই নৃত্যশিল্পীর দলকে মঞ্চ মাতানোর জন্য ভাড়া করা হয়। তেমনই ভাটিন্ডার বিয়ে বাড়িতেও পৌঁছে গিয়েছিল ডান্স ট্রুপটি। কিন্তু সেখানে যে তাদের জন্য এমন ভয়ঙ্কর কিছু অপেক্ষা করছিল, তা তারা স্বপ্নেও ভাবেননি। মঞ্চে বাকিদের সঙ্গে ছিলেন ২২ বছরের অন্তঃসত্ত্বা কুলবিন্দরও। বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত তিন ব্যক্তি নাচ চলাকালীনই মঞ্চে উঠে আসে। যাদের মধ্যে একজনের হাতে ছিল বন্দুক। কুলবিন্দরকে নাচের জন্য জোর করতে থাকে তারা। কিন্তু ওই নৃত্যশিল্পী নাচতে অস্বীকার করলে মঞ্চেই তাকে গুলি করে বন্দুকধারী। সঙ্গে সঙ্গেই লুটিয়ে পড়েন তিনি।

এমন ঘটনায় হতবাক হয়ে যান উপস্থিত অতিথিরা। গোটা ঘটনাটি ক্যারেমাবন্দি হয়েছে। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গেছে।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আততায়ী আপাতত পলাতক রয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। বিয়ে বাড়িতে বন্দুক ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার পরও কীভাবে প্রকাশ্যে বন্দুক নিয়ে অভিযুক্ত ঘুরে বেড়াচ্ছিল, তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

 

বিস্তারিত

খেলাধুলা

525406-yuvi2

বলিউড অভিনেত্রী হ্যাজ়েল কিচের সঙ্গে সদ্য বিবাহ সম্পন্ন করছেন ভারতের তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। গোয়াতে হিন্দু শাস্ত্র মতে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। কিন্তু বিয়ের পরই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

কিন্তু কেন? বিয়ের সবকিছু রীতি শেষ হয়ে যাওয়ার পর, যুবরাজ মঞ্চে দাঁড়িয়ে তার মা শবনম সিং সম্পর্কে কিছু কথা বলতে যান। ছোটোবেলা থেকেই মায়ের ছত্রছায়ায় তিনি বড় হয়ে উঠেছেন। সেই অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়েই কেঁদে ফেলেন যুবরাজ।

ছেলের মুখে এই কথা শোনার পর শবনমও চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি। তার থেকে গর্বিত আর কে হতে পারে!

 

বিস্তারিত

বিচিত্র খবর

world1

এটি হল বছরের সেই সময় যখন মাল্টি মিলিনিয়র টোবাকো টাইকুন ট্রেভারস বেনন বা দি ক্যান্ডিম্যান তার আলিশান বাংলোয় পার্টি দিয়েছিলেন৷ যেখানে থাকে মহিলাদের সঙ্গে মেলামেশার অবাধ সুযোগ৷গোল্ড কোস্ট হোম বা ‘দি ক্যান্ডিশপ ম্যানশন’এ হচ্ছে পার্টির ব্যবস্থা৷পার্টির থিমই কিন্তু বেশ আকর্ষণের বিষয়- Seven Deadly Sins৷থিম অনুযায়ী আমন্ত্রিতদের থাকার ঘর সেজে উঠেছিল- অহংকার, লোভ, যৌন চাহিদা, হিংসা, রাগ, কুড়েমি ও হিংস্রতার থিমে৷

এই পার্টির অতিথিদের তালিকাতেও ছিল চমক৷ছিলেন ইমোজেন অ্যান্তনি ও তার গার্লফ্রেন্ড কাইলে স্যান্ডিল্যান্ড৷এছাড়া অস্ট্রেলিয়ান মডেল ও ডিজে ব্রুক ইভিইরাস থাকবেন সঞ্চালনার দায়িত্বে৷কিছু অতিথিকে আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল ট্রেভারস বেননের টোবাকো স্টোর গুলির প্রোমোশনের মাধ্যমে৷এছাড়া কিছু জনকে ফেসবুক মাধ্যমে৷

প্রতিবারের মতো এবারেও পার্টিতে ক্যান্ডিম্যানের আগমণ ছিল জমকালো৷সেনা ট্যাঙ্কের মতো দেখতে একটি যান৷ যার সামনে ছিল স্বল্পবস্ত্র পরিহিত বেশকিছু মহিলা৷ এই বছরের পার্টির সমস্ত দায়িত্ব সামলেছিলেন ক্যান্ডিম্যানের স্ত্রী তিয়েশা বেনন ও দশ মেয়েবন্ধু৷

বিস্তারিত

ছবিঘর

medialinks MAMS image
image



© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
উত্তরা নিউজ ২০১৩-২০১৬