shop_un.jpg

মাত্র কয়েকদিন বাকি পবিত্র ঈদুল ফিতরের। আর এই ঈদকে সামনে রেখে কেনাকাটায় জমে উঠেছে ঢাকার  বিভিন্ন শপিংমল ও নিউমার্কেট। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এসব শপিংমলগুলোতে চলছে জমজমাট বেচাকেনা ঢল।

রাজধানীর অভিযাত বিপনি বিতানগুলো মধ্যে নিউ মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি  শপিংমল, স্টান প্লাজা, রাজলক্ষী সুপার মার্কেট, নট টাওয়ার, মাস্কট প্লাজা, আর এ কে টাওয়ার, ক্রেতাদের ভীড় চোখে পড়ার মতো।

 
এছাড়াও নিম্ন আয়ের মানুষেরা টঙ্গী বাজার, বিভিন্ন বাঙ্গ মার্কেটে তাদের কেনাকাটা করছেন। দশ রমজানের পর থেকে মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ করা গেছে।

মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে দেশি-বিদেশি পোশাকের বাহারী সমাহার। তবে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও মেয়েদের জন্য ইন্ডিয়া, পাকিস্তান ও চীনের নানা ধরনের পোশাক পাওয়া যাচ্ছে শপিং সেন্টারগুলোতে।

 
এছাড়াও প্রতি বছরের মতো এবারও বলিউড চলচিত্রের নায়িকা ও হিন্দি সিরিয়ালের নামের পাশাপাশি জনপ্রিয় চরিত্রের নামে যেমন, কিরন মালা, ফ্লোর টার্চ, মুদি, পাখি, সাজনা, অপ্সরা, গোপী, হাতিজা, বুটিক জয়পুরি ইত্যাদি।
 
 
এছাড়াও ধুপিয়া কাতান, বেনারশী, সেটিং পাটি শাড়ী বেশি বিক্রি হচ্ছে রাজধানীর শপিংমলগুলোতে। তবে দেশিয় টাংগাইলের শাড়ির চাহিদাও বেশি। মহিলারা নিজেদের পছন্দের পোশাকের পাশাপাশি ম্যাচিং করে কসমেটিকস ও পার্স (ব্যাগ) ক্রয় করছেন।  

 
এছাড়াও শিশু, ছেলে ও পুরুষদের জন্য রয়েছে পাঞ্জাবি, গেঞ্জি ও শার্ট এবং মহিলাদের জন্য রয়েছে দেশি-বিদেশি বাহারী রঙ্গের শাড়ি।

ব্যবসায়ীরা জানালেন, এ বছর দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা না থাকায় রমজানের শুরু থেকেই বেচা-কেনা শুরু হয়েছে। ক্রেতারা সাচ্ছন্দে মার্কেটে আসছে পছন্দের পোশাক কিনছে। দিন যতই যাচ্ছে বেচাকেনা ততোই বাড়ছে।

 
ক্রেতারা জানালেন, গত বছরের চেয়ে এ বছর পোশাকের মূল্য কিছুটা বেশি হলেও তবে ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে আছে


উত্তরানিউজ২৪ডটকম / রনি চৌধুরী, রিপোর্টার

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা