Savar

সাভারে অন্তসত্বা এক গৃহবধূকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার পৌর এলাকার জামসিং মহল্লায় সোলায়মান মার্কেট এলাকায় জনৈক সিদ্দিক মিয়ার বাড়িতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এ হত্যাকাণ্ড ঘটানোর অভিযোগে নিহত ওই গৃহবধূর স্বামী মোহাম্মদ হোসেনকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। খুন হওয়া গৃহবধূর নাম কল্পনা আক্তার (২৫)।

 নিহতের স্বজন ও প্রতিবেশীরা জানায়, আজ সন্ধ্যায় গৃহবধূ কল্পনা আক্তার স্বামীসহ নিজেদের ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। এরই কোনো এক সময় কল্পনার স্বামী নির্মাণ শ্রমিক মোহাম্মদ হোসেন নিজ বিছানায় স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি টের পেয়ে মোহাম্মদ হোসেনের বাবা সিদ্দিক মিয়া ছেলেকে রুমের মধ্যে আটকিয়ে রেখে সাভার থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে থানা পুলিশ এসে কল্পনা আক্তারের স্বামী মোহাম্মদ হোসেনকে গ্রেপ্তার ও মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।  

এ প্রসঙ্গে আটক মোহাম্মদ হোসেন সাংবাদিকদের জানায়, তার স্ত্রীর সাথে তার (মোহাম্মদ হোসেন) বড় ভাই হাসেম মিয়ার পরকিয়া চলছিলো। বিষয়টি জানার পর তিনি কল্পনাকে সাবধান করে দেন। কিন্তু এরপরও উভয়ের মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক চলমান থাকায় তিনি ক্রোধের বশবর্তী হয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেন।

 তবে নিহত কল্পনা আক্তারের মা মাহমুদা বেগম বলেন,  বিভিন্ন ব্যবসা বা কাজের কথা বলে মোহাম্মদ হোসেন এ পর্যন্ত তাঁদের কাছ থেকে প্রায় তিন লাখ টাকা যৌতুক হিসেবে নিয়েছে। মোহাম্মদ হোসেন আরো দেড় লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। এই টাকা তাঁরা দিতে না পারায় সে কল্পনাকে প্রায়ই মারধর করত। এই যৌতুকের টাকা না দিতে পারায় মোহাম্মদ হোসেন কল্পনাকে খুন করেছে।  

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসিনুল কাদির জানান, নিহতের স্বামীকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।  

তিনি আরো জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা