New book 2017

বছরের প্রথম দিন উৎসবে মেতেছিল সারা দেশের বিদ্যালয়গুলো। না, এটা নববর্ষের উৎসব ছিল না, ছিল নতুন বই হাতে পাওয়ার উৎসব।

আগের বছরগুলোর ধারাবাহিকতায় এ বছরও বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনা মূল্যে বই তুলে দেওয়া হয়েছে। নতুন বই হাতে পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়েছে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। তারা নতুন বইয়ের ঘ্রাণ নিয়েছে, পাতায় পাতায় হাত বুলিয়ে পাঠের আনন্দ খুঁজেছে। সরকারি উদ্যোগের এই ধারাবাহিকতাকে আমরা স্বাগত জানাই।

 প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় মিলিয়ে এ বছর চার কোটির বেশি শিক্ষার্থীর হাতে ৩৬ কোটি বই বিতরণের কর্মসূচি নেওয়া হয়। বই প্রণয়ন, উতপাদন, পরিবহন ও বিতরণ—এ এক বিশাল কর্মযজ্ঞ। কয়েক লাখ মানুষ এর সঙ্গে জড়িত। তাতে কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতি থাকাটা অস্বাভাবিক নয়। এমন দেখা গেছে এ বছরও। প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, রংপুর ও নাটোরে প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থী বই উৎসবে এসে নতুন বই পায়নি। তারা কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরেছে। আগে বারবার বলা হয়েছে, নতুন বই বিতরণের সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো অর্থ নেওয়া যাবে না। অভিযোগ আছে, এ বছরও কিছু বিদ্যালয় নতুন বইকে হাতিয়ার করে নানা ধরনের ফি আদায় করেছে। যারা ফি দিতে পারেনি, তাদের বই দেওয়া হয়নি। সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়গুলোর এ ধরনের কর্মকাণ্ড অত্যন্ত নিন্দনীয়। পাশাপাশি বিভিন্ন স্থানে কিছু অনুকরণীয় উদ্যোগও দেখা গেছে। এমনই একটি উদ্যোগ ছিল গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলায়। সেখানে প্রাথমিকে শিশুদের ঝরে পড়ার হার ২১ শতাংশ এবং মাধ্যমিকে ১৩ শতাংশ। ঝরে পড়ার দুটি প্রধান কারণ শিশুশ্রম ও বাল্যবিবাহ। এ ক্ষেত্রে অভিভাবকদের সচেতন করতে নতুন বইয়ের সঙ্গে একটি প্রচারপত্র বিতরণ করা হয়। তাতে ছিল শিশুশ্রম ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে একটি শপথবাক্য। এরপর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে ১৪ কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধন করা হয়। উদ্যোগটি প্রশংসনীয়। শুধু শ্রীপুর নয়, ঝরে পড়া রোধে সারা দেশেই এমন উদ্যোগ নিতে হবে।

বর্তমান সরকার শিক্ষার প্রসার ও মান উন্নয়নে নানা ধরনের কর্মসূচি নিয়েছে। তবে এ জন্য সরকারি উদ্যোগই যথেষ্ট নয়; সমাজের সর্বস্তরের সহযোগিতা একান্তভাবে প্রয়োজন। আমরা আশা করি, সঠিক উদ্যোগ ও জনসহযোগিতার ভিত্তিতে এ দেশে শিক্ষার মান দ্রুত উন্নতি করবে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টিকে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা