sharlinchopra

প্লেবয় পত্রিকার প্রচ্ছদ-কন্যা আবার খবরের শিরোনামে। `বলিউড-বম্বশেল` শার্লিন চোপড়া টুইট করেছেন “…আই হ্যাভ হ্যাড সেক্স ফর মানি…“। তারপর থেকেই বিতর্কের ঝড় উঠেছে টিনসেল টাউনে।

শার্লিনের এই মন্তব্যকে ঘিরে বিতর্কের সূত্রপাত। তাঁর অভিযোগ প্রতিদিন টুইটারের মাধ্যমে বিভিন্ন অপরিচিতের কাছ থেকে শয্যাসঙ্গিনী হওয়ার প্রস্তাব পান তিনি। এর মধ্যে অনেক ক্ষেত্রেই অর্থের বিনিময় এই প্রস্তাব আসে। শার্লিনের এই মন্তব্য ঘিরে সবে মাত্র ছোট খাট একটা ঝড়ের পূর্বাভাস তৈরী হচ্ছিল। ঠিক তখনই মোক্ষম তিরটি ছোঁড়েন তিনি। টুইটের মাধ্যমে বিন্দাস শার্লিন দ্ব্যর্থহীন ভাষায় জানিয়েছেন অতীতে টাকার বিনিময়ে শয্যাসঙ্গিনী হওয়ার প্রচুর অভিজ্ঞতা থাকলেও আপাতত সে পথ মাড়াতে নারাজ তিনি।

স্বঘোষিত `সেক্স-সিম্বল` ভারতীয় এই মডেল কাম অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন এমন একটি ঘটনাও তাঁর মনে পড়ে না যেখানে তিনি স্বেচ্ছায় অর্থের বিনিময় শয্যা-সঙ্গিনী হয়েছেন।
এই বছর জুলাই মাসে লস এঞ্জেলস সফর থেকে দেশে ফেরার পর যৌনতা সম্পর্কে তাঁর চোখ খুলে গিয়েছে বলেও জানান তিনি। পারিপার্শ্বিক বাধ্যবাধকতার জেরেও যে এখন তাঁর পক্ষে আর বিভিন্ন লোকের শয্যা-সঙ্গিনী হওয়া সম্ভব নয় সে কথা উপলব্ধি করেছেন তিনি।

“আমি খোলামেলা পোষাকে স্বচ্ছন্দ্য বোধ করি, আমার যৌন স্বত্ত্বাকে ছবি আর ভিডিওর মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে ভালবাসি। পছন্দ করি যখন কেউ আমাকে `টিজ` করে। ভালবাসি যৌনতা। কিন্তু শুধু মাত্র তখনই যখন সেটা এক তীব্র, নিয়ন্ত্রণহীন আকর্ষণের ফসল হয়…“ শার্লিন তাঁর টুইটে একথাই জানিয়েছেন। তিনি তাঁর ফ্যানদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়ে জানিয়েছেন `পেইড সেক্সের জন্য তিনি আর মোটেই প্রস্তুত নন।`



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা