রিজভি

মিয়ানমার থেকে এক লাখ টন চাল কিনে সরকার ঘাতকদের উৎসাহিত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা জজকোর্ট প্রাঙ্গনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মিয়ানমারের সামরিক জান্তা ও সূচি বাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গাদের গণহত্যা, নির্যাতন, নিপীড়ন, দেশান্তরে বাধ্য করার প্রতিবাদে ও নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

রিজভী বলেন, রোহিঙ্গাদের ওপর যে বর্বরতা চলছে তা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। সেখানে বিচিত্র রকমের হত্যাযজ্ঞ চলছে। মহামতি গৌতমবুদ্ধের অনুসারীরা এতো বিভৎস, কসাই হতে পারে সেটা ভাবা যায় না।

তিনি বলেন, নাফ নদীর পানি আজ পানির রং নেই। নাফের পানি আজ রোহিঙ্গাদের রক্তের রং। আর সেই রক্তের ওপর দিয়ে লজ্জাজনকভাবে মিয়ানমার থেকে এক লাখ টন চাল আমদানি করছে সরকার। মিয়ানমারের বর্বর সেনাবাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গাদের হত্যার এভাবেই প্রতিদান দিচ্ছে ভোটারবিহীন অবৈধ সরকার।

সরকারের এই আচরণে ঘাকতরা উৎসাহ পাচ্ছে ও আরও নৃশংস হয়ে উঠছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করতে হবে জানিয়ে রিজভী বলেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতেই হবে। তাদের জানমালের নিরাপত্তা দিয়েই ফিরিয়ে নিতে হবে।

সরকারকে লক্ষ্য করে রিজভী বলেন, আজ কোথায় আপনাদের প্রাণের বন্ধু ভারত? এই খাদ্য সংকটের দিনে ভারত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে এই মুহুর্তে চাল রপ্তানি করবে না। এই হলো বন্ধুত্বের পরিচয়।

বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, চালের দাম ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারি গোডাউনে চাল নেই। চালের বদলে সেখানে ইদুর খেলা করছে। ভয়াবহ দুর্ভিক্ষের প্রতিধ্বনি শোনা যাচ্ছে। এই দুর্ভিক্ষ প্রতিরোধ করবে কে?

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কঠোর সমালোচনা করে রিজভী বলেন, জ্বি হুজুর, জ্বি হুজুর করে এই রোহিঙ্গা সংকট সমাধান সম্ভব নয়।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / MRR

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা