rape_dp

২৩ বছর বয়সী এক তরুণকে অপহরণ করে টানা তিন দিন ধরে যৌন নির্যাতন করেছেন তিন নারী। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রিটোরিয়ায়।

 

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি ওই তরুণকে তিন নারী অপহরণ করে যৌন নির্যাতনের পর অর্ধনগ্ন অবস্থায় মাঠের মধ্যে ফেলে রেখে যান।

পুলিশ জানায়, জোর করে এনার্জি ড্রিংক খাইয়ে টানা তিন দিন ওই তরুণের সঙ্গে শারীরিক সংসর্গ করেছেন তিন নারী।

 

দক্ষিণ আফ্রিকা পুলিশের মুখপাত্র ক্যাপ্টেন কোলেটে ওয়েলব্যাক বলেন, সম্প্রতি ওই তরুণ ১৫ আসনের একটি ট্যাক্সিতে উঠেছিলেন। সেখানেই ওই তিন নারী যাত্রী ছিলেন। শহরে যাওয়ার বদলে চালক ট্যাক্সি ভুল পথে নিয়ে যান। এ সময় নারীরা ওই তরুণকে সামনের আসনে যেতে বলেন। আসন বদল করা মাত্রই এক নারী তাঁকে জোর করে ইনজেকশন দেন। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। পরে চেতনা ফিরলে তিনি নিজেকে একটি অপরিচিত কক্ষের ছোট্ট একটি বিছানায় দেখতে পান। এরপর ওই নারীরা তাঁকে এনার্জি ড্রিংক খাইয়ে টানা তিন দিন যৌন নির্যাতন করেন। রাতে তাঁকে ঘুমাতে দিতেন না তাঁরা। তিন দিন পর ওই তরুণকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় প্রিটোরিয়ার বেনোনি এলাকার একটি মাঠে ফেলে রেখে যান। নির্যাতনের শিকার তরুণটি একটি মোটরসাইকেল থামিয়ে চালককে সব খুলে বলেন। পরে ওই মোটরসাইকেলের চালক পুলিশকে খবর দেন।

 

ক্যাপ্টেন কোলেটে ওয়েলব্যাক বলেন, অপরাধী নারী বা পুরুষ যে-ই হোন না কেন, দক্ষিণ আফ্রিকার পুলিশ যেকোনো যৌন নির্যাতনের মামলা যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে দেখে। ওই তিন নারীকে গ্রেপ্তার করে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

গত ফেব্রুয়ারিতে আফ্রিকার দেশ জিম্বাবুয়ের লুপেন এলাকায় অপহরণের পর চার নারীর হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার হন এক যুবক। ওই নারীরা যৌন নির্যাতনের পর তাঁর বীর্য সংগ্রহ করে পালিয়ে যান।

 

গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবানে এক ব্যক্তিকে ঘরের ভেতর বন্দী করে যৌন নির্যাতন চালান তিন নারী। তাঁরা ওই ব্যক্তিকে মারধরও করেন। ২০১৫ সালে দেশটিতে ৩১ বছর বয়সী এক যুবক একটি বিএমডব্লিউ গাড়িতে লিফট নিয়েছিলেন। ওই গাড়িতে থাকা তিন নারী বন্দুকের মুখে তাঁকে যৌন উত্তেজক খাওয়ানোর পর অমানবিকভাবে যৌন নির্যাতন করেন। এই ঘটনা দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলোতে বেড়েই চলেছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / ডেস্ক রিপোর্ট

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা