hojj

মক্কায় পবিত্র হারাম শরিফের সম্প্রসারণ কাজের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এবং অভ্যন্তরীণ হাজীদের জন্য কোটা নির্ধারণ করেছিল সৌদি আরব। এর ফলে ইচ্ছা থাকলেও এতদিন সবাই হজে অংশ নিতে পারতেন না।

কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার করায় এ বছর থেকে জনসংখ্যার অনুপাতে শতভাগ হজপ্রত্যাশী হজ পালন করতে পারবেন। শুক্রবার দুপুরে জেদ্দা কনস্যুলেটের কনসাল (হজ) বাংলাদেশ প্রতিদিনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ১০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি থাকার কারণে গত বছর এক লাখ এক হাজার বাংলাদেশি পবিত্র হজ পালনের সুযোগ পেয়েছিলেন। কোটা পদ্ধতি না থাকায় এ বছর এক লাখ ২৭ হাজার বাংলাদেশি হজ পালন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা