Quine

শনিবার (১৮ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া ৮টার দিকে চিনের সানাইয়া সিটি এরেনার মঞ্চে তার মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন গতবারের বিশ্বসুন্দরী স্টেফানি দেল ভালে।
এবার ছিল প্রতিযোগিতার ৬৭তম আসর। শনিবার রাতে এর চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয়। ১১৭ দেশের সুন্দরীকে হটিয়ে সেরার স্বীকৃতি পেলেন মিস ইন্ডিয়া। ভারতের এই রূপসীর সৌন্দর্য ও মেধার কাছে হার মানলেন সবাই।

ফাইনালে বিচারকরা মানসী চিল্লারকে প্রশ্ন করেন, কোন পেশায় সবচেয়ে বেশি বেতন থাকা উচিত ও কেন। তার উত্তর ছিল, ‘সব মায়েদেরই সর্বোচ্চ সম্মান প্রাপ্য। তবে এখানে বেতন বা সম্মানী কাগজের নোটে মাপা যাবে না। ভালোবাসা আর সম্মানই তাদের বেলায় মুখ্য।’

এ নিয়ে ১৭ বছর পর আবারও বিশ্বসুন্দরীর মুকুট গেলো ভারতে। সবশেষ ২০০০ সালে এই খেতাব জিতেছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সব মিলিয়ে ঐশ্বরিয়া রাই, ডায়ানা হেডেনসহ ভারতীয় সুন্দরীরা ছয়বার মুকুটটি মাথায় তুলতে পেরেছেন।

মানসীর জন্ম ১৯৯৭ সালের ১৪ মে। ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের মেয়ে তিনি। তার উচ্চতা ১৭৫ সেন্টিমিটার।
তিনি মেডিক্যালের ছাত্রী। মেডিসিন ও সার্জারি বিষয়ে ব্যাচেলর’স ডিগ্রি নিচ্ছেন। কার্ডিয়াক সার্জন হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছেন তিনি। প্রত্যন্ত অঞ্চলে অলাভজনক হাসপাতাল গড়ার ইচ্ছা আছে তার।
ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্যে তালিম নিয়েছেন মানসী। স্কেচ ও আঁকাআঁকি উপভোগ করেন তিনি। তার কথায়, ‘স্বপ্ন দেখা থামানো অর্থ হলো বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দেওয়া।’
এবারের প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয়েছেন মেক্সিকোর আন্ড্রিয়া মেজা। তৃতীয় হন ইংল্যান্ডের স্টেফানি হিল।
পিপল’স চয়েস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন মিস মঙ্গোলিয়ার ইঙ্কজিন টেভিনড্যাশ। এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত শীর্ষ দশে ছিলেন ভারতের মানসী চিল্লার এবং বাংলাদেশের জেসিয়া ইসলামও।
এর আগে প্রতিযোগিতার সেরা পাঁচে পৌঁছেন ভারতের মানষী চিল্লার, ইংল্যান্ডের স্টেফানি হিল, ফ্রান্সের অরোরে কিশেনিন, কেনিয়ার ম্যাগলিন জেরুতো ও মেক্সিকোর আন্ড্রিয়া মেজা।
এদিকে ফাইনালের আগে মাল্টিমিডিয়া চ্যালেঞ্জে জিতেছেন মিস মঙ্গোলিয়া। বিউটি উইথ অ্যা পারপাসে নির্বাচিত হয়েছেন ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের সুন্দরীরা।
ফাইনালে সংগীত পরিবেশন করেন বুলগেরিয়ার কিশোর ক্রিস্তিয়ান কস্তোভ, চীনের বালক জেফ্রি লি ও বালিকা সেলিন ট্যাম।
অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী মেগান ইয়াং।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা