tea

চা-প্রেমীদের অহরহ এই প্রশ্নটি করা হয়, তুমি কয় কাপ চা খাও দিনে? গরমের দিনে এই প্রশ্নটি আরো বেশি করা হয়। কিন্তু চাখোরদের গরমকালে চা পান ভেতর থেকে গরম রাখে নাকি ঠাণ্ডা হতে সাহায্য করে? 

আমরা এই তর্কে না গিয়ে বরং বৈজ্ঞানিকভাবে বিষয়টির মীমাংসা করি। তাহলেই বোঝা যাবে একজন মানুষকে শীত কিংবা গ্রীষ্মে কেন এক কাপ হলেও চা পান করা উচিত। 

চা আপনার শরীরকে ঠাণ্ডা করতে সহায়তা করে

গবেষণায় জানা গেছে যে সাধারণত চাপ্রেমীরা গ্রীষ্মপ্রধান কিংবা মরুভূমি জাতীয় অঞ্চলের মানুষ হয়ে থাকেন। গবেষণায় আরো জানা গিয়েছে যে, গরমকালে চা পান বন্ধ করে দেওয়া উচিত নয়। কারণ, চা আপনাকে ঠাণ্ডা থাকতে সাহায্য করে। ২০১২ সালে ওলি জয় দ্বারা প্রকাশিত একটি থিসিসে প্রকাশ পায় যে, ঠাণ্ডা পানীয় খেলে শরীরের যে পরিমাণ তাপমাত্রা কমে, গরম পানীয় খেলে তার চাইতে অধিক পরিমাণে কমে। একজন মানুষ চা খাওয়ার পর তার শরীরে অধিক তাপমাত্রা জন্ম নেয়। এতে করে সে বেশি ঘামে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে। এজন্যই গরমের সময়েও চা গুরুত্বপূর্ণ।

বরফ আপনার শরীরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেবে

ওলি জয়ের আরেকটি গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে অতিরিক্ত ঠান্ডা কিংবা বরফ খেলে আপনার শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যাবে। ঘাম হওয়া কমে যাবে এবং শরীর থেকে প্রয়োজনীয় ঘাম নিঃসৃত হতে পারবে না। এক্ষেত্রে শরীর দুর্বল ও খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

সুতরাং, চা-প্রেমীরা চা খেতে পারেন নিশ্চিন্তে। তবে মনে রাখবেন, সেই সাথে প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে হবে আপনাকে। তবেই আপনি এই গরমের মধ্যেও থাকবেন সুস্থ ও সুন্দর।

সূত্র: ফেমিনা 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা