rwebhgg8.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চারদিনের এক সরকারি সফরে আজ বৃহস্পতিবার রাতে জার্মানি যাচ্ছেন। সফরকালে তিনি মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশগ্রহণের বাইরে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন। শনিবার অনুষ্ঠিতব্য ওই বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ইস্যুর পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের নির্যাতন ও বাংলাদেশে তাদের আশ্রয় নেওয়ার বিষয়ে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 
 
গতকাল বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনের আয়োজক সংস্থার আমন্ত্রণে জার্মানি যাচ্ছেন। এবারের সম্মেলনে বিশ্বের ২০টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা এই নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন। ৫৩তম এই সম্মেলনে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের কোন সরকার প্রধান অংশ নিচ্ছেন।
 
তিনি বলেন, এই সম্মেলন বিশ্ব নিরাপত্তা আলোচনায় সবচেয়ে বড় ‘থিংক ট্যাংক’ হিসেবে বিবেচিত। এবারের সম্মেলনে প্রথাগত নিরাপত্তার পাশাপাশি খাদ্য, পানি, স্বাস্থ্য ও পরিবেশগত নিরাপত্তা, শরণার্থী ও অভিবাসনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা হবে।
 
প্রধানমন্ত্রী আজ রাতে ইতিহাদ এয়ারওয়েজ-এর একটি ফ্লাইটযোগে জার্মানির উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন। আবুধাবি হয়ে মিউনিখ পৌঁছে শুক্রবার নিরাপত্তা সম্মেলনের উদ্বোধনী পর্বে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী রবিবার প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরবেন।
 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদেশ সফরে বাংলাদেশ বিমানকে ব্যবহার না করার ঘটনা ‘বয়কট’ কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখন জার্মানিতে বিমানের ফ্লাইট নেই। বিমানে যেতে হলে অন্য ফ্লাইট বন্ধ করতে হবে। যেখানে সহজেই বাণিজ্যিক ফ্লাইটে যাওয়া যায়, সেখানে আমরা বিমানে যেতে বলি না। এছাড়া বেশি প্লেনও নাই। আরও প্লেন আসার পর পরিস্থিতির পরিবর্তন হবে।


উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা