rony_un.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিতর্কিত স্ট্যাটাস ডিলিট করে দু:খ প্রকাশ করেছেন ভারতের জি বাংলার জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার ৬’ চ্যাম্পিয়ন আবু হেনা রনি। সম্প্রতি কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেড়ানো নিয়ে ৬ মে রাতেসা মাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন তিনি। সেখানে ‘বৃষ্টির জল’ শিরোনামের একটি কবিতা থেকে দুটি লাইন তুলে দেন। লাইন দুটি হলো— ‘তোমার মোঘল জলাধারে/ ইনি গা ভেজালেন।’ সেটিও সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।
 
এরপর মঙ্গলবার আবু হেনা রনির বিরুদ্ধে নাটোরের সিংড়া থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা হয়। সিংড়া উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. হাফিজুর রহমান মামলাটি দায়ের করেন। সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল-মামুন জানান, মামলাটি ১১ মে রাতে রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 
এদিকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি নিয়ে দেওয়া স্ট্যাটাস নিয়ে ভুল বুঝতে পেরে ৭ মে রাত ১১টা ৪৪ মিনিটে দুঃখপ্রকাশ করে ফেসবুকে আরেকটি স্ট্যাটাস দেন ও আগের স্ট্যাটাসটি সরিয়ে ফেলেন। সেখানে লিখেছেন, ‘বৃষ্টির দিনে পছন্দের একটি কবিতার দুটি লাইন শুধু এক করেছিলাম। কিন্তু আপনারা সেটাকে অন্য কিছুর সাথে এক করে ফেললেন। এই বৃষ্টির দিনে কেউবা ইচ্ছা করে হাটু পানিতে ভিজছে কেউবা গোটা ম্যানহলে ডুবছে, বিষয়টা শুধুই এই। তবুও কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।’
 
রনি সাংবাদিকদের বলেন, কোন উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এই লেখাটি লিখিনি। জাস্ট আমি দুটা লাইন লিখছি যে, তিনি পা ভেজালেন, ইনি গা ভেজালেন। ঐদিন বৃষ্টির একটা দিন ছিল। ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হয় যে একটা ছেলে ড্রেনের মধ্যে পড়ে গেছে। একেবারে কালো পানিতে সে ভেজা।এটিকে কেন্দ্র করেই আমি ঐ স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম।
 
তিনি আরো বলেছেন, ‘যখন দেখলাম আমার ঐ স্ট্যাটাস নিয়ে মানুষ ভুল বুঝছে, তখন আমি সেটা ডিলিট করি। পরে আমি একটা স্ট্যাটাস দেই যে, আমি যা লিখেছি, সেটাকে অনেকে অন্যদিকে নিয়েছে। যার কারণে আমি আন্তরিকভাবে দু:খিত এবং আমি ক্ষমা চাইছি। এটুকু বলতে চাই যে, যারা ভুল বুঝছে, তাদের কাছে আমি ক্ষমা চাই।
 
আবু হেনা রনি সিংড়া উপজেলার ৫নং চামারী ইউনিয়নের প্রত্যন্ত গ্রাম বিলদহরের আব্দুল লতিফের ছেলে। ২০১২ সালের ‘মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার ৬’ আয়োজনের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর থেকে স্ট্যান্ড–আপ কমেডি নিয়ে কাজ করছেন তিনি।


উত্তরানিউজ২৪ডটকম / ডেস্ক রিপোর্ট

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা