শিশু

রাজধানী তুরাগের ধউর আশুতিয়া বেরিবাধ সংলগ্ন ৫৯ নং বাসার ১৮ নং রুম থেকে অপহৃত নবজাতক মো. সাহাবীকে চট্টগ্রাম থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।এসময় অপহরনকারী চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- ইয়াসমিন ওরফে সিমল (২০), রহিমা বেগম(৪৫), মো.কেফায়েত হোসেন (২৫)।
 
পুলিশ জানায়, মোবাইল প্রযুক্তির সহায়তায় প্রথমে ঢাকার শেরে বাংলা থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহরনকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য ইয়াসমিন ওরফে সিমল (২০) কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সহযোগী রহিমা (৪৫) কে আটক করা হয়। পর্যায়ক্রমে তাকেও জিঙ্গাসাবাদ করলে সে জানায় শিশু সাহাবীকে চট্টগ্রামে রাখা হয়েছে। পরে চট্টগ্রামের জোয়ারগঞ্জ থানাধীন কদমতলা এলাকা থেকে কেফায়েত নামের আরেক অপহরনকারীর কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এসময় কেফায়েত পালাতে চেষ্টা করলে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
 
তুরাগ থানার ওসি অপারেশন ইন্সপেক্টর মো. দুলাল হোসেন শিশু উদ্ধারের ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, অপহৃত শিশুটিকে উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। আটককৃত অপহরনকারী চক্রের ৩ সদস্যকে সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
 
গত ২৩ তারিখ তুরাগের ধউর আশুতিয়া বেরিবাধ সংলগ্ন ৫৯ নং ভাড়াটিয়া বাসা থেকে পাশের ভাড়াটিয়া মহিলা কৌশলে এই ৬ মাসের শিশুটিকে অপহরন করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা মো. জনি মিয়া বাদী হয়ে তুরাগ থানায় একটি সাধারন ডায়রী করলে অভিযানে নামে তুরাগ থানা পুলিশ। যার জিডি নং ১০৮৭।


উত্তরানিউজ২৪ডটকম / এমআরআর

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা