মৃত সংবাদ

মৃত্যুসংবাদ রটে গিয়েছিল। স্বজনরা কাঁদতে কাঁদতে হাসপাতালে পৌঁছেছেন। ডেথ সার্টিফিকেটও ইসু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু একি! রোগী যে দিব্যি হাসপাতালে হেঁটে বেড়াচ্ছে। সম্প্রতি এমন ঘটনাই প্রত্যক্ষ করল ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি হাসপাতালের রোগী ও স্বজনরা। সম্প্রতি এমন খবরই জানিয়েছে জি নিউজ।

হাসপাতাল থেকে মৃত্যু সংবাদ যায় থানায়। এরপর সেটা মৃতের স্বজনদের কাছে। ফোন পেয়ে দ্রুত হাসপাতালে ছুটে যান তার আত্মীয়-স্বজনরা। কিন্তু ফুল-মালা হাতে হাসপাতালে গিয়ে তারা তাদের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছেন না। যার মৃত্যুর খবর পেয়ে কাজকর্ম ফেলে হাসপাতালে আসা, সেই রোগী দিব্যি হেঁটে বেড়াচ্ছে!

এক সপ্তাহ ধরে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ব্যাঁটরার জয় নারায়ণ পাণ্ডে। বুধবার সকালে ব্যাঁটরা থানা থেকে ফোনে মৃত্যু সংবাদ পান স্বজনরা। ব্যাঁটরার মধুসূদন পালচৌধুরী লেনে নেমে আসে শোকের ছায়া। সংসারে একা জয় নারায়ণের সত্কারের জন্য এগিয়ে আসেন প্রতিবেশীরা। খবর চলে যায় দূরে থাকা আত্মীয়দের কাছে। ফুল, মালা আর শববাহী গাড়ি নিয়ে তাঁরা পৌঁছে যান হাসপাতালে।

শোকগ্রস্ত মানুষগুলির জন্য সেখানে অপেক্ষা করছিল বড় চমক। মৃত্যু সংবাদ ভুল। দিব্যি বেঁচে আছেন জয় নারায়ণ! অভিযোগ ইস্যু হওয়া ডেথ সার্টিফিকেট ছিঁড়ে ফেলে দেন হাসপাতাল কর্মীরা। ওই রোগীকেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার জেরে রীতিমতো ক্ষুব্ধ রোগীর আত্মীয়-স্বজনেরা। ঘটনার তদন্ত চেয়ে হাওড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তারা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, ওয়ার্ডের মধ্যে ঘুরছিলেন জয়নারায়ণ পাণ্ডে। তখনই তাঁর খালি বেডে চলে আসেন অন্য একজন। জয়নারায়ণ পাণ্ডের বেডেই তাঁর মৃত্যু হয়। আর সেখান থেকেই বিভ্রান্তির শুরু।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা