Chaild

দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে শিশুদের যৌন নির্যাতনের ঘটনা। এ ঘটনায় জড়িয়ে পড়ছে শিক্ষিত সমাজ থেকে শুরু করে নানা বয়সের মানুষ। ঠিক তখনই বিশ্বের অন্য প্রান্তে এক শিশুধর্ষক তার কাণ্ডের জন্য চরম সাজা পেল। এখানে বিচারক ও শাস্তি প্রদানকারী একজনই। সে একটি বুলডগ।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ‘নেটিভ লাভ’-এর প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরকানসাসের স্যালাইন কান্ট্রির বাসিন্দা ৫২ বছরের র‌্যান্ডল জেমস একজন শিশুকামী বা পেডোফিল। সম্প্রতি সে তার এক প্রতিবেশীর বাড়ির দোতলার জানলা দিয়ে চুপিসাড়ে সেই বাড়ির শোওয়ার ঘরে প্রবেশ করে। সেই ঘরে তখন ৩ ও ৬ বছরের দু’টি শিশুকন্যা ঘুমোচ্ছিল। জেমসের নেশা ঘুমন্ত শিশুদের ধর্ষণ করা। সে যখন ওই শিশু দু’টির কাছে যায়, ঠিক তখনই সেই পরিবারের পোষা বুলডগটি তার উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং ধস্তাধস্তি শুরু হয়।

বুলডগটি জেসমের যৌনাঙ্গকে লক্ষ্য করে এগিয়ে যায় এবং এক কামড়ে সে জেমসের পুরষাঙ্গ খেয়ে ফেলে। গোলমাল শুনে শিশু দু’টির বাবা-মা সেই ঘরে প্রবেশ করেন এবং রক্তাক্ত অবস্থায় জেমসকে দেখতে পান। জেমসকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাকে প্রাণে বাঁচানো সম্ভব হলেও অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সে শয্যাশায়ী বলেই জানা গিয়েছে।

স্যালাইন কান্ট্রির শেরিফের দফতর থেকে বুলডগের প্রসংশা করা হয়েছে। এবং এমন কুকুরের মালিক হিসেবে পরিবারটিকে ‘সৌভাগ্যবান’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা