tony-islam

ক্ষমতায় থাকাকালে ঈশ্বরে অবিশ্বাসী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার। ‘আমরা কেউ ঈশ্বরের না’- এমন মন্তব্যও করেছিলেন একবার। তবে এবার রীতিমতো ধার্মিক বনে গেছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ছাড়ার পর থেকে নিয়মিত ধর্মচর্চা করে যাচ্ছেন ব্লেয়ার।

২০১১ সালে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সাবেক এই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, বিশ্বাসী থাকার জন্য তিনি নিয়মিত কোরান শরীফ থেকে আয়াত পাঠ করেন। প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়ার কয়েক মাস পর থেকে টনি ব্লেয়ার খ্রিস্টান ক্যাথলিক ধর্ম চর্চা শুরু করেন। পরবর্তীতে ধর্ম চর্চা বহাল রাখার জন্য এবং বিশ্বের বর্তমান অবস্থাকে বোঝার জন্য তিনি কোরান পাঠ শুরু করেন বলে জানিয়েছেন টনি ব্লেয়ার।

অবজারভার ম্যাগাজিনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ সব কথা বলেন। ওই সময় তিনি বলেন, বিশ্বায়নের এই যুগে বিশ্বাসী হিসেবে টিকে থাকা বেশ কঠিন। তিনি আরো বলেন, ‘আমি প্রতিদিন কোরান থেকে পড়ি। আমি মূলত পড়ি কারণ এটি অত্যন্ত শিক্ষামূলক এবং বিশ্বকে বোঝার জন্যও আমি এটাকে পড়ি।’

এর আগে ব্লেয়ার মুসলিম বিশ্বাসকে ‘সুন্দর’ মন্তব্য করে বলেন, নবী মুহাম্মদ (সা.) ছিলেন ‘একটি অত্যন্ত সভ্য শক্তি’। অবশ্য ২০০৬ সালে এক বক্তব্যে টনি ব্লেয়ার জানিয়েছিলেন, কোরান শরীফ একটি লিখিত বই যেখানে অনেক কিছু সন্নিবেশন করা হয়েছে।

সেখানে বিজ্ঞান ও জ্ঞানের কীর্তন রয়েছে এবং কুসংস্কারকে ঘৃণার কথা বলা হয়েছে। এটি খুবই বাস্তব সম্মত এবং নিশ্চিতভাবে এটি প্রকাশের সময় থেকে অনেক পরের বিষয় যেমন রাষ্ট্র পরিচালনা, ধর্ম ও নারীদের নিয়ে লেখা হয়েছে। এ সময় তিনি সেই সকল জিহাদিদের সমালোচনা করেন যারা কোরানকে অস্ত্র হাতে তুলে নেয়ার জন্য ব্যাখ্যা করছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

এ বিভাগের আরও খবর

ফেসবুকে আমরা